Your Financial Literacy Starts Here



ক্রেডিট কার্ডের বিভিন্ন রেট

Posted: October 31, 2018

ক্রেডিট কার্ড শুনলেই আমাদের চোখে ভেসে ওঠে এমন একটা কার্ড যা সাথে থাকলে, টাকা না থাকলেও টেনশনের কিছু নেই।ক্রেডিট কার্ড নামের এই একরত্তি কার্ডটা আপনার পকেটে থাকলেই যেকোন জায়গায় গিয়ে আপনি পছন্দমত কেনাকাটা করতে পারেন!

 

ডেবিট কার্ডের সাথে ক্রেডিট কার্ডের পার্থক্য হলো, ডেবিট কার্ড দিয়ে টাকা তুলতে হলে ঐ অংকের টাকা আগে থেকেই আপনার অ্যাকাউন্টে ডিপোজিট করা থাকতে হবে; কিন্তু ক্রেডিট কার্ডে নিজের অ্যাকাউন্টে আগে থেকে টাকা থাকার প্রয়োজন নেই। মোদ্দা কথা হলো, ব্যাংক আপনাকে ক্রেডিট কার্ড মারফত টাকা ধার দেয়। মাস শেষে সেই ধারকৃত অংকের টাকাটা আপনি শোধ করে দেবেন, মোটামুটি এই হলো ব্যাংকের সাথে আপনার চুক্তি।

 

এই যে ব্যাংক আপনাকে টাকা ধার দিচ্ছে, তা তো এমনি এমনি নয়, তাই না? এই ধারকৃত টাকাটা আপনি যখন ব্যাংককে ফেরত দেবেন, তখন আপনাকে একটি নির্দিষ্ট হারে ইন্টারেস্ট বা সুদ দিতে হবে। ইন্টারেস্টের এই হারটি কিন্তু বিভিন্ন পরিস্থিতি অনুযায়ী পরিবর্তন হতে পারে। তাই এই হার সম্পর্কে যদি ভালো ধারণা থাকে, তাহলে আপনি সহজেই আপনার নিজের ফাইন্যান্সকে নিজের বশে রাখতে পারবেন।

 

আপনি যখন ক্রেডিট কার্ডের জন্য ব্যাংকে আবেদন করেন, তখন ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী চুক্তিপত্র অনুসারে যে রেটটা আপনি দিতে রাজি হোন, সেটিই ব্যাংকের স্ট্যান্ডার্ড রেট। এই রেটে তেমন একটা পরিবর্তন আসে না। তবে বাজার মূল্য বা অন্য কোন কারণে যদি বা পরিবর্তন আসেও, তাহলে ব্যাংক আপনার সাথে যোগাযোগ করে আপনাকে এই সম্পর্কে জানিয়ে দেবে।

 

এছাড়াও কিছু ইন্টারেস্ট রেট থাকে যেগুলো কোন না কোন সূচকের সাথে পরিবর্তন হয়। যেমন ধরুন আপনার ব্যাংক আপনার সাথে চুক্তির সময় আপনাকে বললো, ইউ এস ডলারের মূল্য বাড়লে আপনার ইন্টারেস্ট রেট একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ বেড়ে যাবে। এরকম কোন সূচকের সাপেক্ষে যদি আপনার ইন্টারেস্ট রেটে পরিবর্তন আসে তখন সেই রেটটাকে আমরা ভ্যারিয়েবল রেট বা পরিবর্তনশীল হার বলি। ক্রেডিট কার্ড নেয়ার সময় এই হার সম্পর্কে একটু ভালোভাবে খোঁজখবর নেয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ।

 

বেশিরভাগ ক্রেডিট কার্ড মালিকেরই একটি সাধারণ সমস্যা আছে। নিজের পকেট থেকে টাকা খরচের সময় আমরা প্রায় সবাইই হিসেব করে খরচ করলেও ক্রেডিট কার্ডের টাকাটা চোখে দেখতে না পাওয়ায় খরচের রাশ টানতে আমরা প্রায়ই ভুলে যাই। এরপর মাস শেষে হয় টাকাটা পরিশোধ করতে পারি না অথবা পরিশোধ করতে দেরি করি। এই ভুল যাতে আপনি আর না করেন, তাই শাস্তি হিসেবে ব্যাংক আপনার ইন্টারেস্ট রেট বাড়িয়ে দিতে পারে! এই রেটকে পেনাল্টি রেট বলে। তবে সুখের কথা হল, আপনি যদি প্রতি মাসে যথাসময়ে পাওনা পরিশোধ করেন, তাহলে সেক্ষেত্রে ব্যাংক আবার আপনার পেনাল্টি রেট কমিয়েও দিতে পারে!

 

এতক্ষণ আমরা যেসব ইন্টারেস্ট রেট সম্পর্কে জানলাম, এর সবগুলোই কেনাকাটার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। অর্থাৎ কেনাকাটা করার সময় আপনি সেলসম্যানকে কার্ডটা দেবেন। কার্ড পাঞ্চিং এর পরে টাকা ব্যাংক থেকে ট্রান্সফার হবে। কিন্তু আপনি যদি নিজে সরাসরি আপনার ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে টাকা তুলতে চান, যদি আপনি আপনার ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে লোন তুলতে চান কিংবা যদি একটি চেক আকারে টাকা নিতে চান, তাহলে সেই টাকা শোধ করার সময় আপনাকে যে রেটে ইন্টারেস্ট দিতে হবে সেটাকে বলা হয় ক্যাশ অ্যাডভান্স রেট। এই ইন্টারেস্ট রেট কিন্তু খুব চড়া!

 

এইসব রেটের বাইরেও থাকে প্রোমোশনাল রেট। বিভিন্ন উপলক্ষ্যে আপনার ব্যাংক আপনাকে এই রেট দিতে পারে। যেমন ধরুন, ঈদের সময় আপনাকে আপনার ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে শপিং করতে উদ্বুদ্ধ করার জন্য হয়ত আপনার ব্যাংক আপনাকে নির্দিষ্ট কয়েকটি আউটলেটে কম ইন্টারেস্ট রেটে শপিং করার অফার দিলো। এই সময়ে কেনাকাটা করা লাভজনক, কারণ প্রোমোশনাল রেট সাধারণ রেটের চেয়ে বেশ কম হয়। তবে প্রোমোশনাল রেটে কেনাকাটা করতে চাইলে কতদিন এই অফার চলছে, অফার শেষে আবার স্ট্যান্ডার্ড রেটে ফিরে যাবে কিনা এসব জেনে নিতে ভুলবেন না যেন!

 

আপনার ক্রেডিট কার্ডে কোন রেটটি প্রয়োগ হচ্ছে তা জানতে পারবেন আপনার ক্রেডিট কার্ডের চুক্তিপত্র থেকে। চুক্তিপত্রে যেকোন ধরণের রেট সম্পর্কে উল্লেখ করা থাকে। এছাড়া মাস শেষে আপনার ব্যাংক স্টেটমেন্টেও আপনি আপনার ইন্টারেস্ট রেট সম্পর্কে জানতে পারবেন। এর পাশাপাশি ব্যাংক আপনাকে যেকোন ইন্টারেস্ট রেট পরিবর্তনের খবর ূাআগেভাগে ই-মেইল বা চিঠির মাধ্যমে জানিয়ে দেবে।

 

দোকানে গিয়ে পছন্দের জিনিসের প্রাইস ট্যাগ দেখে কেবল সাথে টাকা নেই বলে সেটা ফেলে আসার দিন এখন আর নেই। বিজ্ঞানের অগ্রগতির সাথে সাথে জীবনটা কতই না সহজ হয়ে গেছে, ভাবুন তো? তাই এই আশীর্বাদগুলোর বিস্তারিত ব্যবহার কিন্তু আমাদের জানতেই হবে। আপনি যদি নাই জানেন যে পেনাল্টি রেট বলে কিছু একটা আছে, তাহলে তো আপনাকে কিছুটা ক্ষতির সম্মুখীন হতে হতেই পারে, তাইনা? তাই নিজেই বিস্তারিত জেনে নিন ক্রেডিট কার্ড সম্পর্কে আর উপভোগ করুন এর সুযোগ সুবিধা!




Suggested Articles



Social Media Links

social social social